• রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৪:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
হাজীগঞ্জে ভোটের আচরণবিধি ও সরকারি কর্মচারী বিধিমালা লঙ্গন করে আব্দুর রহমান মোল্লার নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ মিয়ানমারে স্বর্ণ ও দামি পাথরের খনিসমৃদ্ধ একটি এলাকা দখল করেছে বিদ্রোহীরা সরকারের সক্ষমতা বাড়ার সাপেক্ষে ভবিষ্যতে ভাতার পরিমাণ বাড়ানো হবে : সমাজকল্যাণমন্ত্রী চাঁদপুরে বিদ্যালয়ে চর্যাপদ একাডেমির বই উপহার হাজীগঞ্জে ‘নো হেলমেট, নো ফুয়েল’ বাস্তবায়নে কার্যক্রম শুরু করলো ট্রাফিক পুলিশ মতলব উত্তর উপজেলা যুবদলের আলোচনা সভা দখল তো দূরের কথা, একটা ভোট জাল পড়লেই কেন্দ্র বন্ধ : নির্বাচন কমিশনার শিক্ষার্থীরা আহত হলে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত অনুদান দিবে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট ফরিদগঞ্জে আইফার ইসলামী সাহিত্য- সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার পুরস্কার প্রদান হাজীগঞ্জে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

হাজীগঞ্জে দাখিল পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫১ জন , পাশের হার ৭৮.২৩

ত্রিনদী অনলাইন
ত্রিনদী অনলাইন
আপডেটঃ : সোমবার, ১৩ মে, ২০২৪

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্ :

হাজীগঞ্জে দাখিল পরীক্ষায় ১১৫৩ জন অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৯০২ জন। পাশের হার ৭৮.২৩ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫১ জন, এ গ্রেড ৩১৫ জন, এ মাইনাস ২৬২ জন, বি গ্রেড ১৭৯ জন ও সি গ্রেড ৯৫ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ২৫১ জন। এ বছর কোন মাদরাসায় শতভাগ পাশের গৌরব অর্জন করতে পারেনি।

সোমবার(১২ মে) প্রকাশিত ফলাফলে উপজেলায় জিপিএ-৫ এর দিক থেকে সেরা অবস্থানে রয়েছে হাজীগঞ্জ আহমাদিয়া কামিল মাদরাসা। এ প্রতিষ্ঠান থেকে ১৩৮ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ১০৭ জন। পাশের হার ৭৭.৫৪ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২১ জন, এ গ্রেড ৩৪ জন, এ মাইনাস ১৬ জন, বি গ্রেড ৩০ জন ও সি গ্রেড ৬ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ৩১ জন।

দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে কাপাইকাপ আলিম মাদরাসা। এ প্রতিষ্ঠান থেকে ৭১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৬৫ জন। পাশের হার ৯৩.৯৫ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮ জন, এ গ্রেড ১৫ জন, এ মাইনাস ১৩ জন, বি গ্রেড ১৪ জন ও সি গ্রেড ১৫ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ৬ জন।

তৃতীয় অবস্থানে রাজারাগাঁও ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা। এ প্রতিষ্ঠান থেকে ৯৮ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৮৮ জন। পাশের হার ৯০ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭ জন, এ গ্রেড ৪৮ জন, এ মাইনাস ২৩ জন, বি গ্রেড ৭ জন ও সি গ্রেড ৩ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১০ জন।

এছাড়া নেছারাবাদ ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা থেকে থেকে ৪৫ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৩৩ জন। পাশের হার ৭৩.৩৩ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ জন, এ গ্রেড ১১ জন, এ মাইনাস ১২ জন, বি গ্রেড ৪ জন ও সি গ্রেড ২ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১২ জন।

রামচন্দ্রপুর ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা থেকে ৩১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৩০ জন। পাশের হার ৯৬.৭৭ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ৬ জন, এ মাইনাস ১৩ জন, বি গ্রেড ১০ জন ও সি গ্রেড ১ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১ জন।

সুহিলপুর এবিএস ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা থেকে ৬৪ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৪৫ জন। পাশের হার ৭১.২৯ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ জন, এ গ্রেড ৭ জন, এ মাইনাস ১১ জন, বি গ্রেড ২০ জন ও সি গ্রেড ৬ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১৯ জন।

ছাহেল আবাদ এম.এন ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা থেকে ৫৬ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৪৫ জন। পাশের হার ৮০.৩৬ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ২২ জন, এ মাইনাস ১২ জন, বি গ্রেড ৯ জন ও সি গ্রেড ২ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১১ জন।

বেলচোঁ কারিমাবাদ ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা থেকে ৫৪ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৪৭ জন। পাশের হার ৮৭.০৩ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ জন, এ গ্রেড ১৭ জন, এ মাইনাস ১৫ জন, বি গ্রেড ৯ জন ও সি গ্রেড ৪ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ৭ জন।

সাদ্রা হামিদিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা থেকে ৩৮ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৩৩ জন। পাশের হার ৮৬.৮৪ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ জন, এ গ্রেড ১১ জন, এ মাইনাস ১২ জন, বি গ্রেড ৭ জন ও সি গ্রেড ২ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ৫ জন।

নওহাটা ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা থেকে ৯১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৭৬ জন। পাশের হার ৮৪.৫২ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ জন, এ গ্রেড ৩৯ জন, এ মাইনাস ২০ জন, বি গ্রেড ৯ জন ও সি গ্রেড ৬ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১৫ জন।

বাকিলা ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা থেকে ৩৫ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ২২ জন। পাশের হার ৬২.৮৬ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ জন, এ গ্রেড ১১ জন, এ মাইনাস ৪ জন, বি গ্রেড ২ জন ও সি গ্রেড ৩ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১৩ জন।

বলাখাল এম.এন আলিম মাদরাসা থেকে ৩৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ১৭ জন। পাশের হার ৪৩.৬০ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ৩ জন, এ মাইনাস ৬ জন, বি গ্রেড ৫ জন ও সি গ্রেড ৩ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ২২ জন।

কাকৈরতলা ইসলামীয়া আলিম মাদরাসা থেকে ৫০ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৪০ জন। পাশের হার ৮০ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ৫ জন, এ মাইনাস ৮ জন, বি গ্রেড ১১ জন ও সি গ্রেড ১৬ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১০ জন।

দেশগাঁও দারুস সুন্নাহ ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসা থেকে ৩২ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ২৬ জন। পাশের হার ৮১.২৫ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ১০ জন, এ মাইনাস ১১ জন, বি গ্রেড ৩ জন ও সি গ্রেড ২ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ৬ জন।

রাজাপুর ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসা থেকে ৩৬ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ২৩ জন। পাশের হার ৬৩.৮৯ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ৮ জন, এ মাইনাস ১০ জন, বি গ্রেড ৩ জন ও সি গ্রেড ২ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১৩ জন।

মদিনাতুল উলুম ইসলামীয়া দাখিলা মাদরাসা থেকে ৫২ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৩৫ জন। পাশের হার ৬৭.৩০ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ২ জন, এ মাইনাস ৮ জন, বি গ্রেড ১৩ জন ও সি গ্রেড ১২ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১৭ জন।

মাদরাসে আবেদীয়া মোজাদ্দেদীয়া দাখিল মাদরাসা থেকে ৪১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ১৯ জন। পাশের হার ৪৬.৩৪ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ১ জন, এ মাইনাস ৫ জন, বি গ্রেড ৮ জন ও সি গ্রেড ৫ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ২২ জন।

ডাটরা শিবপুর আজিজিয়া দাখিল মাদরাসা থেকে ৩৭ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ২৮ জন। পাশের হার ৭৫.৬৭ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ১২ জন, এ মাইনাস ১১ জন, বি গ্রেড ৪ জন ও সি গ্রেড ১ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ৯ জন।

উচ্চগাঁও ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসা থেকে ৩৫ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ২২ জন। পাশের হার ৬২.৮৬ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ৭ জন, এ মাইনাস ১০ জন, বি গ্রেড ৪ জন ও সি গ্রেড ১ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১৩ জন।

রাজাপুর ছিদ্দিকিয়া দাখিল মাদরাসা থেকে থেকে ৩৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৩৭ জন। পাশের হার ৯৪.৮৭ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ জন, এ গ্রেড ১৬ জন, এ মাইনাস ১৭ জন ও বি গ্রেড ১ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ২ জন।

শ্রীপুর মকবুল আহমেদ ইছমাইলীয়া দাখিল মাদরাসা থেকে ২৩ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ২২ জন। পাশের হার ৯৫.৬৫ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ১১ জন, এ মাইনাস ৪ জন, বি গ্রেড ৪ জন ও সি গ্রেড ৩ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ১ জন।

হাজেরা আলী ক্যাডেট দাখিল মাদরাসা থেকে ৩২ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ২৮ জন। পাশের হার ৮৭.৫০ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ১৫ জন, এ মাইনাস ১২ জন ও বি গ্রেড ১ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ৪ জন।

আলী আহমেদ ইসলামিয়া একাডেমিক দাখিল মাদরাসা থেকে ১৬ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ১৪ জন। পাশের হার ৮৭.৫০ শতাংশ। এর মধ্যে এ গ্রেড পেয়েছে ৪ জন, এ মাইনাস ৯ জন ও বি গ্রেড ১ জন এবং অকৃতকার্য হয়েছে ২ জন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুক

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১