• মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ১০:৩৪ পূর্বাহ্ন

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাতেই আমাদের মাতৃভূমি নিরাপদ : শিক্ষামন্ত্রী

ত্রিনদী অনলাইন
ত্রিনদী অনলাইন
আপডেটঃ : শনিবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২
বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাতেই আমাদের মাতৃভূমি নিরাপদ
সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট্রের অনুদানের চেক বেশ কয়েকজন সাংবাদিকদের হাতে তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী।

নিজস্ব প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ আওয়াম লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কখনো কাউকে ভুলে যান না। অতিমারির সময় তিনি সব শ্রেণি পেশার মানুষের পাশে সহযোগিতা নিয়ে দাঁড়িয়েছেন। সাংবাদিকরাও এর থেকে বাদ পড়েননি। তিনি যেমন কাউকে ভুলে যান না, সেটা যেন আমরা মনে রাখি। শেখ হাসিনার হাত ধরেই আজ দেশ এগিয়ে চলছে, তাঁর হাতেই আমাদের মাতৃভূমি নিরাপদ। তাঁর হাতেই পদ্মা সেতু হয়েছে, তার হাতেই মেট্টোরেল উদ্বোধন হয়েছে, কর্ণফুলীনে হচ্ছে এবং আজ পর্যন্ত আমাদের যত অর্জন তার সবকিছুই কিন্তু তার হাতে।

শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকেলে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের তৃতীয় তলায় হলরুমে জেলার ৮ উপজেলার সাংবাদিকদের নিয়ে আয়োজিত সাংবাদিক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন করে পদ দেখিয়েগেছেন। সেই দেখানো পথে তার কন্যা আমাদেরকে উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশের নাগরিক হওয়ার সুযোগ করে দিয়েছেন। আর আমরা এখন স্বপ্ন দেখি ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হতে পারব। আমরা উন্নয়নশীল দেশের কাতারে সামিল হচ্ছি।

দীপু মনি বলেন, চাঁদপুরেই গত ১৪ বছরে যে উন্নয়ন হয়েছে, তার আগে বহু দশকেও সেরকম উন্নয়ন হয়নি। এটি সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার কারণে। তার কাছে জনগণের যে কোন প্রয়োজনের কথা তুলে ধরা মাত্র তার সাধ্যমত যতটুকু সামর্থ থাকে তা দিয়ে জনগণের প্রয়োজনীয়তা পুরণ করার জন্য সিদ্ধান্ত দেন। তিনি এমন একজন রাষ্ট্র নায়ক যিনি তড়িৎ সিদ্ধান্ত দিতে পারেন এবং সেই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নও দ্রুততার সাথে করেন। তাঁর এই দুরদর্শীতা ও সহাসীকতার কারণে আজ বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। কারণ তিনি আমাদের যা স্বপ্ন দেখিয়েছেন, তার সব কিছু বাস্তবায়ন কেরছেন। তিনি ডিজিটাল বাংলাদেশ ও মধ্যম আয়ের দেশ করে দিয়েছেন। আজকে আমরা স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার জন্য কাজ করছি। যেখানে সবকিছুই স্মার্ট হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সাংবাদিকদের সাথে আমার আত্মার সম্পর্কে। কারণ আমার পিতা এই পেশায় জড়িত ছিলেন। ছোট বেলা থেকেই আমি তা দেখে এসেছি। আমি চাঁদপুর প্রেসক্লাবের একজন সদস্য। দেশের প্রেসক্লাবগুলোর মধ্যে চাঁদপুর প্রেসক্লাব অন্যতম একটি। আমি এই প্রেসক্লাবের সাথে আছি, সবসময় পাশে থাকব এবং প্রেসক্লাবের জন্য আমার সাধ্যমত কাজ করার চেষ্টা করব। এখানে আসলে মনে হয়, আমি নিজের পরিবারের মধ্যেই আছি।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, পত্রিকাগুলো সকালে হাতে পেলে আমরা দেখতে পাই প্রথম পাতাতেই অনেক সময় নেতিবাচক সংবাদ। কিন্তু প্রথম পাতায় ইতিবাচক সংবাদগুলোও নিয়ে আসা প্রয়োজন। কারণ অনেক মানুষের সকাল শুরু হয় তার পত্রিকার সংবাদ পড়া দিয়ে। সেখানে নেতিবাচক সংবাদগুলো প্রভাব পড়ে। সব ইতিবাচক সংবাদ হবে তাও আমি বলছিনা, যেখানে সমস্যা ও সংকট আছে তাও তুলে ধরতে হবে।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মিলন। সাধারণ সম্পাদক রিয়াদ ফেরদৌসের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মো. জিল্লুর রহমান।

বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত সভাপতি এইচএম আহসান উল্যাহ, সাধারণ সম্পাদক আল-ইমরান শোভন, বীর মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ুন কবির, সাংবাদিক দেলোয়ার আহমেদ, রাশেদ শাহরিয়া পলাশ, রহিম বাদশা, রোকনুজ্জামান রোকন, মুনির চৌধুরী, আনোয়ার হাবিব কাজল, শাহাদাত হোসেন শান্ত, লক্ষ্মণ চন্দ্র সূত্র ধর, বিপ্লব সরকার, নেয়ামত হোসেন, গোলাম মোস্তফা, কেএম মাসুদ, মো. শওকত আলী, আরিফ রাসেল, তালহা জুবায়ের, খুরশিদ আলম শিকদার, শাওন পাটওয়ারী, শ্যামল চন্দ্র দাস, গোলাম সারওয়ার সেলিম, গোলামুন্নবী খোকন, রোকনুজ্জামান, জাকির হোসেন, জাকির হোসেন, কামরুজ্জামান টুটুল, মো. মাসুদ আলম, মো. মাসুদ রানা, আলমগীর তালুকদার, সুজন পোদ্দার, কামরুজ্জামান প্রমূখ।

শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি চতুর্থবারের মত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হওয়ায় তাঁকে ফুল দিয়ে বরণ করেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের ২০২৩ সালের সভাপতি এইচ এম আহসান উল্যাহ ও সাধারণ সম্পাদক আল-ইমরান শোভন।

সমাবেশের শুরুতেই শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট্রের অনুদানের চেক বেশ কয়েকজন সাংবাদিকদের হাতে তুলে দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুক

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বু বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১৩
১৫১৬১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭
৩০৩১