• শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০১:২৫ পূর্বাহ্ন

বিএনপি-জামায়াত সহিংসতা করে দেশের শান্তি বিনষ্ট ও অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়: শিক্ষামন্ত্রী

ত্রিনদী অনলাইন
ত্রিনদী অনলাইন
আপডেটঃ : রবিবার, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

ইসমাইল হোসেন বিপ্লব॥
আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাস -নৈরাজ্য ও ষড়যন্ত্রমূলক অপরাজনীতির প্রতিবাদে কচুয়ায় আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকালে উপজেলার সাচার উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সাচার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন,শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি এমপি। এসময় তিনি বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি চিহ্নিত চক্র দেশের শান্তি বিনষ্ট ও অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়। কর্মসূচীর নামে বিভিন্ন প্রকার অযৌক্তিক দাবী নিয়ে বিএনপি যাতে সহিংসতা করে জনগনের জানমালের ক্ষতি না করতে পারে সে জন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে হবে। ২০২৪ সালে নির্বাচনে নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা আনার জন্য সবাইকে অনুরোধ করেন। শান্তি সমাবেশের মাধ্যমে সরকারের সকল উন্নয়নের বার্তা জনগনের মাঝে পৌছে দিতে দলীয় নেতাকর্মীদের আহব্বান জানান।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মিন্নত আলী তালুকদারের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপি। তিনি বলেন, বিএনপি মানে বেঈমান নাফরমান।এই বেঈমান নাফরমানদের এই কচুয়ায় এবং বাংলাদেশে স্থান হতে পারে না। বেঈমান নাফরমানদের এই বাংলাদেশের কোন আশংকা সৃষ্টি করা কিংবা শান্তি বিনষ্ট করতে আমরা দিবো না। শান্তি সমাবেশের মাধ্যমে সরকারের উন্নয়নের বার্তা কচুয়ার বিভিন্ন স্তরের মানুষের মাঝে পৌছে দিতে হবে।

সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড.সেলিম মাহমুদ। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, যারা অতীতে ক্ষমতায় ছিলো এবং ক্ষমতায় আসতো তারা তাদের আখের গুছানোর জন্য, ক্ষমতা প্রয়োগ করার জন্য, অত্যাচার করার জন্য, তাদের নিজেদের ভালো থাকার জন্য, পাঁচ বছরের জন্য। আর শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসছেন পাঁচ বছর দশ বছরের জন্য নয়, তিনি এসেছেন বাংলাদেশের প্রজন্ম থেকে প্রজন্মের জন্য, ১০০ বছরের জন্য। আমাদের ভবিষৎ প্রজন্মরা যাতে ভালো থাকে তার জন্য। ২১০০ সালের পরিকল্পনা ডেল্টা প্ল্যান এই বাংলাদেশকে চিরস্থায়ী করার জন্য এই উন্নয়নকে টেকসই করার জন্য তিনি ১শত বছরের পরিকল্পনা নিয়েছেন। পৃথিবীর খুব কম রাষ্ট্রই ১শত বছরের পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করেনি। তিনি শুধু পরিকল্পনা গ্রহণ করেননি, তিনি সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন, অর্থায়ন করেছেন।হাজার হাজার কোটি লক্ষ লক্ষ টাকা দিয়ে যাচ্ছেন। আওয়ামী লীগ সরকার আবার ক্ষমতায় আসবেন।রাষ্ট্র পরিচালনা করবেন। লক্ষ্য ২০৪১ বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে পরিণত করা।তিনি যেই স্মার্ট বাংলাদেশের কথা বলেছেন আমাদের সবাইকে ছাত্র শিক্ষক চাকুরীজীবী ব্যবসায়ী শ্রমিক কর্মচারী সবাইকে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে কাজ করতে হবে।বিএনপি জামায়াত দুসরদের বিরুদ্ধে সব সময় আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

অনান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ঢাকা মহানগর শাহবাগ থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জিএম আতিকুর রহমান, কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ শাহজাহান শিশির ও সাধারন সম্পাদক সোহরাব হোসেন সোহাগ চৌধুরী, চাঁদপুর পৌর সভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল, কচুয়া পৌর মেয়র নাজমুল আলম স্বপন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাচ্ছেল খান ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইঞ্জি. ইব্রাহীম খলিল বাদল। একই দিনে কচুয়া উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নে অনুরূপ শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কচুয়ায় শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা.দীপু মনি এমপি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুক

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০