• রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৩:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
হাজীগঞ্জে ভোটের আচরণবিধি ও সরকারি কর্মচারী বিধিমালা লঙ্গন করে আব্দুর রহমান মোল্লার নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ মিয়ানমারে স্বর্ণ ও দামি পাথরের খনিসমৃদ্ধ একটি এলাকা দখল করেছে বিদ্রোহীরা সরকারের সক্ষমতা বাড়ার সাপেক্ষে ভবিষ্যতে ভাতার পরিমাণ বাড়ানো হবে : সমাজকল্যাণমন্ত্রী চাঁদপুরে বিদ্যালয়ে চর্যাপদ একাডেমির বই উপহার হাজীগঞ্জে ‘নো হেলমেট, নো ফুয়েল’ বাস্তবায়নে কার্যক্রম শুরু করলো ট্রাফিক পুলিশ মতলব উত্তর উপজেলা যুবদলের আলোচনা সভা দখল তো দূরের কথা, একটা ভোট জাল পড়লেই কেন্দ্র বন্ধ : নির্বাচন কমিশনার শিক্ষার্থীরা আহত হলে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত অনুদান দিবে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট ফরিদগঞ্জে আইফার ইসলামী সাহিত্য- সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার পুরস্কার প্রদান হাজীগঞ্জে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

জেনারেটর ব্যবহারের গুরুত্ব

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
আপডেটঃ : সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

ঢাকা শহরে প্রতিনিয়ত বৈদুত্যিক সমস্যা দেখা দেয়, বিশেষ করে গ্রীষ্মকালে হরহামেশাই কারেন্ট যাওয়া আসা করে। গরমের দিনে বাসায় কিংবা অফিসে কারেন্ট না থাকাটা একটি মারাত্মক অসুবিধা আর সামান্য আইপিএস সবসময় সার্ভিস দিতে পারে না। তাই এইসময় ঘনঘন কারেন্ট যাওয়ার সমস্যা সমাধানে প্রয়োজন জেনারেটরের। আজকে আমরা আমাদের এই প্রবন্ধে জেনারেটর ব্যবহার করার সুবিধা গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো।

ঘনঘন কারেন্ট যাওয়ার সমস্যা, এখন ঢাকা শহরে প্রায়ই দেখা যায়, আর সামান্য আইপিএস এতো দীর্ঘসময় ধরে ব্যবহার করা যায় না। অন্যদিকে জেনারেটর আইপিএস এর তুলনায় আরও দীর্ঘসময় ধরে বৈদ্যুতিক সরবরাহ চলমান রাখতে পারে। শুধু তা নয় বাসা বাড়িতে কিংবা অফিসে জেনারেটর ব্যবহার করার আরও অনেক সুবিধা রয়েছে, যেমন:

বিদ্যুৎ প্রবাহের দক্ষতা: একটি জেনারেটর আইপিএস এর তুলনায় আরও উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন মেটেরিয়াল দিয়ে তৈরি করা হয় যা জেনারেটরের কাজ করার সক্ষমতাকে আরও বাড়িয়ে দেয়। বিশেষভাবে তৈরি করার ফলে, এটি আরও লম্বা সময় ধরে বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে পারে।

বহুমুখী কর্মক্ষমতা: জেনারেটর ব্যবহার করে কোন অসুবিধা ছাড়াই বড় বড় মেশিন থেকে শুরু করে মোবাইল ফোন পর্যন্ত বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস চার্জ করা যায় এবং বিদ্যুতের অনুপস্থিতিতে সম্পূর্ণভাবে পরিচালনা করা যায়।

পোর্টেবল: জেনারেটর ব্যবহার করার জন্য বিদ্যুৎ এর কোনো প্রয়োজন হয় না এবং এটির জায়গা প্রয়োজন অনুযায়ী পরিবর্তন করা যায়। আপনার যেখানে জেনারেটর প্রয়োজন আপনি সেখানে নিয়ে গিয়ে এটা ব্যবহার করতে পারবেন।

রক্ষণাবেক্ষণ: জেনারেটর নিয়মিত ব্যবহার করার পড়ে বার বার রক্ষণাবেক্ষণ করার প্রয়োজন হয় না। কোনো রকম রক্ষণাবেক্ষণ ছাড়াই এটি লম্বা সময় পরিচালনা করা যায়।

নির্ভরযোগ্যতা: জেনারেটর ব্যবহার করার সবচেয়ে ভালো দিক হল, এটি আপনাকে নির্ভরশীল পারফরম্যান্স প্রদান করে। ঘণ্টার পড় ঘণ্টা কোন ধরনের সমস্যা ছাড়াই এটি সার্ভিস দিয়ে যেতে পারে।

নিয়মিত ব্যবহার করার জন্য কিংবা ঘনঘন কারেন্ট যাওয়ার সমস্যা জন্য সবচেয়ে ভালো এবং নির্ভরযোগ্য সমাধান হচ্ছে জেনারেটর ব্যবহার করা। বিদ্যুতের অনুপস্থিতিতে ভারী মেশিন গুলো সম্পূর্ণ ভাবে পরিচালনা করার জন্য জেনারেটরের গুরুত্ব অনেক বেশি। এছাড়াও বাসা বাড়িতে নিয়মিত ব্যবহার করার জন্য, কিংবা হঠাৎ বিদ্যুতের সমস্যা দেখা দিলে, জেনারেটর ব্যাপক ভাবে কার্যকরী। বর্তমান বাজারে বিভিন্ন দামের ও বিভিন্ন ব্র্যান্ডের জেনারেটর রয়েছে। এই ধরনের জেনারেটর এর দাম জেনে নিতে পারবেন বিডিস্টল এর ওয়েবসাইট ভিজিট করে।

জেনারেটর ব্যবহারের গুরুত্ব

ঢাকা শহরে প্রতিনিয়ত বৈদুত্যিক সমস্যা দেখা দেয়, বিশেষ করে গ্রীষ্মকালে হরহামেশাই কারেন্ট যাওয়া আসা করে। গরমের দিনে বাসায় কিংবা অফিসে কারেন্ট না থাকাটা একটি মারাত্মক অসুবিধা আর সামান্য আইপিএস সবসময় সার্ভিস দিতে পারে না। তাই এইসময় ঘনঘন কারেন্ট যাওয়ার সমস্যা সমাধানে প্রয়োজন জেনারেটরের। আজকে আমরা আমাদের এই প্রবন্ধে জেনারেটর ব্যবহার করার সুবিধা গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো।

ঘনঘন কারেন্ট যাওয়ার সমস্যা, এখন ঢাকা শহরে প্রায়ই দেখা যায়, আর সামান্য আইপিএস এতো দীর্ঘসময় ধরে ব্যবহার করা যায় না। অন্যদিকে জেনারেটর আইপিএস এর তুলনায় আরও দীর্ঘসময় ধরে বৈদ্যুতিক সরবরাহ চলমান রাখতে পারে। শুধু তা নয় বাসা বাড়িতে কিংবা অফিসে জেনারেটর ব্যবহার করার আরও অনেক সুবিধা রয়েছে, যেমন:

বিদ্যুৎ প্রবাহের দক্ষতা: একটি জেনারেটর আইপিএস এর তুলনায় আরও উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন মেটেরিয়াল দিয়ে তৈরি করা হয় যা জেনারেটরের কাজ করার সক্ষমতাকে আরও বাড়িয়ে দেয়। বিশেষভাবে তৈরি করার ফলে, এটি আরও লম্বা সময় ধরে বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে পারে।

বহুমুখী কর্মক্ষমতা: জেনারেটর ব্যবহার করে কোন অসুবিধা ছাড়াই বড় বড় মেশিন থেকে শুরু করে মোবাইল ফোন পর্যন্ত বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস চার্জ করা যায় এবং বিদ্যুতের অনুপস্থিতিতে সম্পূর্ণভাবে পরিচালনা করা যায়।

পোর্টেবল: জেনারেটর ব্যবহার করার জন্য বিদ্যুৎ এর কোনো প্রয়োজন হয় না এবং এটির জায়গা প্রয়োজন অনুযায়ী পরিবর্তন করা যায়। আপনার যেখানে জেনারেটর প্রয়োজন আপনি সেখানে নিয়ে গিয়ে এটা ব্যবহার করতে পারবেন।

রক্ষণাবেক্ষণ: জেনারেটর নিয়মিত ব্যবহার করার পড়ে বার বার রক্ষণাবেক্ষণ করার প্রয়োজন হয় না। কোনো রকম রক্ষণাবেক্ষণ ছাড়াই এটি লম্বা সময় পরিচালনা করা যায়।

নির্ভরযোগ্যতা: জেনারেটর ব্যবহার করার সবচেয়ে ভালো দিক হল, এটি আপনাকে নির্ভরশীল পারফরম্যান্স প্রদান করে। ঘণ্টার পড় ঘণ্টা কোন ধরনের সমস্যা ছাড়াই এটি সার্ভিস দিয়ে যেতে পারে।

নিয়মিত ব্যবহার করার জন্য কিংবা ঘনঘন কারেন্ট যাওয়ার সমস্যা জন্য সবচেয়ে ভালো এবং নির্ভরযোগ্য সমাধান হচ্ছে জেনারেটর ব্যবহার করা। বিদ্যুতের অনুপস্থিতিতে ভারী মেশিন গুলো সম্পূর্ণ ভাবে পরিচালনা করার জন্য জেনারেটরের গুরুত্ব অনেক বেশি। এছাড়াও বাসা বাড়িতে নিয়মিত ব্যবহার করার জন্য, কিংবা হঠাৎ বিদ্যুতের সমস্যা দেখা দিলে, জেনারেটর ব্যাপক ভাবে কার্যকরী। বর্তমান বাজারে বিভিন্ন দামের ও বিভিন্ন ব্র্যান্ডের জেনারেটর রয়েছে। এই ধরনের জেনারেটর এর দাম জেনে নিতে পারবেন বিডিস্টল এর ওয়েবসাইট ভিজিট করে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুক

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১